কেমন হবে ইন্টারনেট বিহীন পৃথিবী?

কেমন হবে ইন্টারনেট বিহীন পৃথিবী?
ইন্টারনেট আছে বলেই কিন্তু ছোট্ট রায়হানের পক্ষে মিলিয়ন ডলার আয় করা সম্ভব হয়েছে। তো কখনো কি ভেবে দেখেছেন যে কি হতো যদি পৃথিবীতে ইন্টারনেটই না থাকতো। কিছুই হয়তো হতো না। সেভাবেই তো পৃথিবী চলে শতাব্দির পর শতাব্দি। সত্যি কথা বলতে, যদি এই মুহূর্তে সাড়া বিশ্বের ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ করে দেওয়া হয় তাহলে, এখনো বিশ্বের অর্ধেকেরও বেশি মানুষ বুঝবেই না যে ইন্টারনেট নেই।

কারন ডিজিটালাইজেশনের এই যুগেও প্রায় ৪০০ কোটি মানুষ এখনো ইন্টারনেট সংযোগের বাহিরে রয়েছে। তবে এতে কোনো সন্দেহ নেই যে, সবার আগে টের পেয়ে যাবে Google কিংবা Facebook মতো জায়জান্টিক প্রতিষ্ঠান গুলো। কারন ইন্টারনেট সংযোগ বন্ধ হয়ে গেলে প্রায় ৪৪০ মিলিয়ন ডলারের ব্যাবসা হারাবে তারা।

আচ্ছা ভাবুন তো Facebook, Twitter, Instagram কিংবা Google ছাড়া একদিন। বলতে চাচ্ছি কেমন হবে যদি না থাকে ইন্টারনেট। অনেকেই হয়তো বলবেন বেশ ভালোই হবে। মানুষ স্মার্টফোনটি থেকে মুখ উঠিয়ে এবার হয়তো সামনের মানুষটির সাথে কথা বলতে শুরু করবে।

Email আর Messenger এর Message বাদ দিয়ে এবার চিঠি লিখতে শুরু করবে সবাই। মানুষ বুঝবে আরেক জন মানুষের সাথে যোগাযোগ ফোন ব্যাবহার না করেও সম্ভব। ভার্চুয়াল জগতে নয়, বাস্তব দুনিয়ায় আবার নতুন করে সবাই হয়তো সামাজিক হয়ে উঠবে।

তবে বিষয়টা ঠিক এতটা সহজ নয়। ইন্টারনেট শুধু চিঠির অস্তিত্বকেই বিলুপ্ত করেনি, দৈনন্দিন জীবনের বেশির ভাগ কাজেকেই মানুষ জরিয়ে ফেলেছে ইন্টারনেটের সাথে। এই যেমন সকালে উঠে ট্যাক্সি ডাকা থেকে শুরু করে, ব্যাংকের লেনদেন এমনকি দুপুরের খাবারে অর্ডারের মতোও সাধারাণ কর্মকান্ড গুলোও আজকাল মানুষ ইন্টারনেটের দ্বারা সম্পন্ন করছে।

ইন্টারনেট না থাকলে প্রথমেই ফিরে আসবে চিঠি আর ফ্যাক্স মেশিন। WiFi বা Wireless File Transfer System না থাকলে কম্পিউটার একটির সাথে আরেকটির সংযোগ ঘটাতে লাগবে বৈদ্যুতিক তার। ব্যবহার করতে হবে সিডি।

Blockchain Bitcoin

অর্থনৈতিক প্রভাব

এবার আসা যাক অর্থনিতীর দিকে, সারা বিশ্বের ব্যাংকিং সেবার বেশির ভাগই ইন্টারনেট ভিত্তিক। ইন্টারনেট না থাকলে থাকবেনা e-transfer System। ক্রেডিট কিংবা ডেবিট কার্ড পরিনত হবে মূল্যহীন প্লাস্টিকে। বন্ধ হয়ে যাবে Amazon কিংবা Daraz এর মতো অনলাইন ষ্টোর গুলো।

আর Bitcoin এর কি হবে তা তো আমরা সবাই জানি। মুহূর্তের মধ্যেই ধ্বংস হয়ে যাবে ট্রিলিয়ন ডলার সমপরিমানের Bitcoin ব্যবসা। লসের মুখে পড়বে অনেক Bitcoin ব্যবসায়ী।

এবার আসা যাক, ইন্টারনেট ভিত্তিক Cab কিংবা Google এর মতো জাইয়ান্ট কোম্পানি গুলোর দিকে। ইন্টারনেট না থাকলে বন্ধ হয়ে যাবে শুধু গুগল Amazon আর ফেইসবুকের প্রায় ৪৪০ বিলিয়ন ডলারের ব্যবসা। শুধুমাত্র গুগলেরই পুরো বিশ্বে রয়েছে ৮০ হাজারেরও বেশি কর্মী। সে হিসেবে বেকার হয়ে পরবে লাখো মানুষ।

সাথে ইন্টারনেট ভিত্তক বিজ্ঞাপনের সাথে যুক্ত এমন ব্যবসাও মুখ তুবরে পরবে। এক কথায় উন্নত দেশ গুলো পড়বে বড় ধরনের অর্থনৈতিক সংকটের মুখে। প্রশ্ন আসতে পারে, কি হবে যেসব দেশে ইন্টানেটের তেমন এক্সেস নেই। তারাও বাদ যাবে না এর প্রভাব থেকে।

বিশ্ব বানিজ্য যেহেতু ইন্টারনেট ভিত্তিক তাই ভুক্তভুগি হবে তারাও। আন্তর্জাতিক ট্রনজিট বিমান যোগাযোগ ব্যাহত হওয়ায় পন্য পরিবহনে খরচ বাড়বে ব্যাপক হারে। আর এর প্রভাব পড়বে নিত্য পন্যের দামেও।

ভাবছেন ইন্টারনেট নেই তো কি হয়েছে ঘুরতে যেতে তো আরা বাধা নেই। ঘুরতে হয়তো যাওয়া যাবে, তবে সেখান থেকে নেওয়া সেলফি পোষ্ট করা যাবে না কোথাও।

এখন প্রশ্ন আসতে পারে আসলেই কি ইন্টারনেট Shut down করার কোনো উপায় আছে? কারন পৃথিবীর অনেক দেশেই ইন্টারনেট বন্ধ করার ব্যবস্থা থাকলেও। পুরো বিশ্বের ইন্টারনেট একসাথে বন্ধ করার কোনো একটি সুইচ নেই।

ইন্টারনেট হচ্ছে অনেকগুলো কম্পিউটারের মিলিত নেটওয়ার্কের একটি ব্যবস্থা। তাই কোনো একটি বা একাধিক কম্পিউটার না থাকলে কিংবা কাজ না করলে বাকি গুলো বন্ধ হয়ে যাবে না। তখনো চালু থাকবে অনেক কম্পউটার।

তাই বিশ্বের এক প্রান্তে ইন্টারনেট বন্ধ হয়ে গেলেও আরেক প্রান্তে তা ঠিকই চলবে।